চমেকে মারা যাওয়া আলা উদ্দিনের পরিবারের
পাশে চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর মাস্টার

top Banner

চলমান রিপোর্ট :

অসুস্থ হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) মারা যাওয়া চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার ১৬ নং সাহেরখালী ইউনিয়নের নোয়াপাড়ার বাসিন্দা আলা উদ্দিনের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ১১ নং মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাস্টার। শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে তিনি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিতকরীর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক শহিদুল ইসলাম রয়েল সহ ওই বাড়িতে গিয়ে পরিবারের খোঁজ খবর নেন। তিনি ওই পরিবারকে আর্থিক সহায়তার পাশাপাশি আলা উদ্দিনের দুই সন্তানের পড়াশোনার দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।

চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাস্টার বলেন, গত বৃহস্পতিবার মানবিক শওকত নামে একটি পেইজে মঘাদিয়া ইউনিয়নের নোয়াপাড়ার বাসিন্দা আলা উদ্দিন চট্টগ্রাম মেডিকেলে মারা যাওয়ার পর অর্থের অভাবে মা ফিরোজা বেগম লাশ বহন করে বাড়ি নিয়ে যেতে পারছে না বলে ফেইসবুকে লাইভ দিয়েছেন। অথচ মারা যাওয়া আলা উদ্দিনের বাড়ি সাহেরখালী ইউনিয়নে। তাছাড়া চট্টগ্রাম মেডিকেলে মিরসরাই এর অনেক মানুষ দায়িত্বে রয়েছেন। তাদের বিষয়টি অবহিত করলে লাশ বহন, কাফন-দাফন সব ব্যবস্থা হয়ে যায়। মিরসরাইয়ের অনেকগুলো স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মানবিক কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, শুক্রবার বিকেলে আলা উদ্দিনের বাড়িতে ছুটে যাই। ওর মা, ভাই, সন্তানদের সাথে দেখা করে সামান্য আর্থিক সহযোগীতা করেছি। পরবর্তিতে পরিবারকে আর্থিক সহযোগীতা করবো। আলা উদ্দিনের দুই সন্তানের পড়াশোনার জন্য আমার ব্যক্তিগত তবহিল থেকে খরচ চালিয়ে যাবো ইনশাআল্লাহ।

আরো খবর