আফ্রিকার বহু দেশেই টিকা পেয়েছেন মাত্র ২ শতাংশ মানুষ

ডেস্ক রিপোর্ট

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় আফ্রিকা মহাদেশের অর্ধেক দেশে মাত্র দুই শতাংশ বা তারও কম মানুষ এখন পর্যন্ত করোনা টিকার দুই ডোজ পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এই তথ্য জানিয়েছে বলে শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৈশ্বিক লক্ষ্য অর্জনে আফ্রিকা মহাদেশের ৫৪টি দেশের মধ্যে মাত্র ১৫টি দেশ কমপক্ষে ১০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে সক্ষম হয়েছে। বিশ্বের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী এ সংস্থার বিশ্ব স্বাস্থ্য পরিষদ গত মে মাসে এ লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দেয়।

আফ্রিকায় ডব্লিউএইচও’র টিকা সমন্বয়কারী রিচার্ড মিহিগো বলেন, ‘টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে আফ্রিকার দেশগুলোর অগ্রগতি খুবই সামান্য। আর তাই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বেঁধে দেওয়া লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অর্থাৎ চলতি বছর শেষের আগেই নিজ নিজ দেশের ৪০ শতাংশ মানুষকে দুই ডোজ টিকার আওতায় আনতে এই মহাদেশের দেশগুলোকে আরও অনেক দূরে যেতে হবে।

মিহিগো বলছেন, ‘আফ্রিকার দেশগুলোতে টিকা পাঠানোর পরিমাণ ক্রমেই বাড়ছে। তবে অস্বচ্ছ বিতরণ পরিকল্পনার কারণেই আফ্রিকা এখনও পেছনে পড়ে রয়েছে।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, আফ্রিকা মহাদেশের ৫৪ দেশের মধ্যে অর্ধেক দেশে তাদের মোট জনসংখ্যার মাত্র দুই শতাংশ বা তারও কম মানুষ এখন পর্যন্ত করোনা টিকার দুই ডোজ পেয়েছেন। তবে সংস্থাটির তথ্য অনুযায়ী, মরিশাস ও সিসিলি তাদের মোট জনসংখ্যার ৬০ শতাংশেরও বেশি মানুষকে টিকা দিতে সক্ষম হয়েছে।

এছাড়া দেশের ৪৮ শতাংশ মানুষকে দুই ডোজ টিকার আওতায় এনেছে মরক্কো। এই হারে ২০ শতাংশের ওপরে রয়েছে তিউনিসিয়া, কমোরস এবং কেপ ভার্দে। পুরো সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে ২ কোটি ৩০ লাখ ডোজ টিকা আফ্রিকায় পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ডব্লিউএইচও।

আরো খবর